গাড়ির মালিকানা পরিবর্তন করুন খুব সহজেই; প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ফি

গাড়ির মালিকানা পরিবর্তন করুন খুব সহজেই; প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ফি

images

সাধারণত পুরাতন গাড়ি ক্রয়-বিক্রয়ের ক্ষেত্রে মালিকানা পরিবর্তনের প্রয়োজন হয়। এছাড়াও ওয়ারিশ সূত্রেও মালিকানা পরিবর্তনের প্রয়োজন হতে পারে। গাড়ি ক্রয় ও বিক্রয়ের ক্ষেত্রে যথাসময়ে মালিকানা পরিবর্তন করা না হলে বিভিন্ন আইনি জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে।


সাধারণত পুরাতন গাড়ি ক্রয়-বিক্রয়ের ক্ষেত্রে মালিকানা পরিবর্তনের প্রয়োজন হয়। এছাড়াও ওয়ারিশ সূত্রেও মালিকানা পরিবর্তনের প্রয়োজন হতে পারে।

গাড়ি ক্রয় ও বিক্রয়ের ক্ষেত্রে যথাসময়ে মালিকানা পরিবর্তন করা না হলে বিভিন্ন আইনি জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। যেমন: একজন ব্যক্তির নামে একাধিক যানবাহনের রেজিস্ট্রেশন থাকলে অতিরিক্ত ট্যাক্স প্রদান করতে হয়। বিক্রয়ের পর আপনার নামে রেজিস্ট্রেশন থাকা যানবাহন ব্যবহার করে কোন অপরাধ সংঘটিত হলে তার দায়ও আপনার উপর পড়বে।

যানবাহনের মালিকানা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ক্রেতা ও বিক্রেতা বা ওয়ারিশকে যে সকল আইনগত বিষয়াদি অনুসরণ করতে হবে, তা পাথওয়ে ড্রাইভিং ট্রেনিং স্কুলের এ ব্লগে তুলে ধরা হলো।

গাড়ির মালিকানা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ক্রেতা বা ওয়ারিশকে প্রথমেই নিম্ন উল্লেখিত কাগজপত্র সম্মিলিত ফাইল প্রস্তুত করতে হবে। এই ফাইলে ক্রেতা, বিক্রেতা বা ওয়ারিশের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রগুলো হলো:

গাড়ির মালিকানা পরিবর্তনের জন্য ক্রেতার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১। পূরণকৃত ও স্বাক্ষরিত ‘টিও’ ও ‘টিটিও’ ফরম; [‘টিও’ ও ‘টিটিও’ সহ সকল ফরম ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন]
২। প্রয়োজনীয় ফি জমা দানের রশিদ;
৩। ক্রেতার TIN সার্টিফিকেটের সত্যায়িত কপি (ভাড়ায় চালীত নহে এমন কার, জিপ, মাইক্রোবাস-এর ক্ষেত্রে)
৪। মূল রেজিস্ট্রেশন সনদ (উভয় কপি)/ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);
৫। ছবিসহ নন-জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে ক্রেতার হলফনামা;
৬। সংশ্লিষ্ট নমুনা স্বাক্ষর ফরমে ত্রেতার নমুনা স্বাক্ষর এবং ইংরেজীতে নাম, পিতার/স্বামীর নাম, পর্ণ ঠিকানা ও ০৩ কপি স্ট্যাম্প আকারের রঙ্গীন ফটোসহ ফরমের অন্যান্য সকল তথ্য প্রদান, তবে ক্রেতা কোন প্রতিষ্ঠান হলে, উপরে বর্ণিত কাগজপত্রসহ (হলফনামা ব্যতিত) অফিসিয়াল প্যাডে চিঠি।

গাড়ির মালিকানা পরিবর্তনের জন্য বিক্রেতার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১। ফরম ‘টিটিও’ এবং বিক্রয় রশিদে স্বাক্ষর;
২। বিক্রেতার ছবিসহ বিক্রয় হলফনামা;
৩। বিক্রেতা কোম্পানী হলে কোম্পানীর লেটার হেড প্যাডে ইন্টিমেশন, বোর্ড রেজিুলেশন ও অথরাইজেশন পত্র প্রদান;
৪। মোটরযানটি ব্যাংক অথবা অন্য কোন প্রতিষ্ঠানের নিকট দায়বদ্ধ থাকলে দায়বদ্ধকারী প্রতিষ্ঠানের ঋণ পরিশোদ সংক্রান্ত ছাড়পত্র সংগ্রহ করে তা দাখিল করা।

আরও পড়ুন:
☞  অপেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স নবায়নের সহজ নিয়ম
☞  লার্নার বা শিক্ষানবিশ ড্রাইভিং লাইসেন্সের আবেদন প্রক্রিয়া

ওয়ারিশ সূত্রে গাড়ির মালিকানা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১। পূরণকৃত ও স্বাক্ষরিত ‘টিও’ ও ‘টিটিও’ ফরম [‘টিও’ ও ‘টিটিও’ সহ সকল ফরম ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন];
২। কোর্ট/স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান প্রদত্ত ওয়ারিশ সংক্রান্ত সনদ;
৩। প্রয়োজনীয় ফি জমা দানের রশিদ;
৪। একাধিক ওয়ারিশ থাকলে প্রথম ওয়ারিশের TIN সার্টিফিকেটের সত্যায়িত কপি (ভাড়ায় চালীত নহে এমন কার, জিপ, মাইক্রোবাস-এর ক্ষেত্রে)
৫। মূল রেজিস্ট্রেশন সনদ (উভয় কপি)/ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);
৬। ছবিসহ নন-জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে ওয়ারিশসূত্রে মালিকানা প্রাপ্তি সংক্রান্ত ওয়ারিশগণের হলফনামা [একাধিক ওয়ারিশ থাকলে এবং একজনের নামে মালিকানা প্রদান করা হলে সেক্ষেত্রে অন্যান্য ওয়ারিশগণ কর্তৃক সকলের ছবিসহ নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে আর একটি হলফনামা];
৭। নমুনা স্বাক্ষর ফর্মে নমুনা স্বাক্ষর এবং ইংরেজীতে নাম, পিতার/স্বামীর নাম, পর্ণ ঠিকানা ও ০৩ কপি স্ট্যাম্প আকারের রঙ্গীন ফটোসহ ফরমের অন্যান্য তথ্য পূরণ।

উল্লেখিত কাগজপত্র সম্বলিত ফাইল প্রস্তুত করে বিআরটিএ অনুমোদিত যে কোন ব্যাংক কে মালিকানা পরিবর্তনের ফি জমা দিতে হবে। গাড়ির সিসি বা ধরন অনুযায়ী মালিকানা পরিবর্তনের ফি ভিন্ন হয়ে থাকে।

২০২৪ সালে গাড়ির মালিকানা বদলি বা পরিবর্তনের ফি

০০ থেকে ৬০০ সিসি পর্যন্ত গাড়ির মালিকানা বদলি বা পরিবর্তনের ফি

খাত

মূল ফি

পরিদর্শন ফি

ভ্যাট

মোট ফি

মালিকানা বদলী

৬,০০০

৮০০

১,০২০

৭,৮২০

প্রতিলিপি ফি

৫০০

 

৭৫

৫৭৫

ডিজিটাল রেজিঃ সার্টিফিকেট

৫৪০

 

১৫

৫৫৫

সম্পূরক শুল্ক

১,১৭৬

 

১৭৭

১,৩৫৩

সর্বমোট ফি

১০,৩০৩

৬০১ থেকে ১৪০০ সিসি পর্যন্ত গাড়ির মালিকানা বদলি বা পরিবর্তনের ফি

খাত

মূল ফি

পরিদর্শন ফি

ভ্যাট

মোট ফি

মালিকানা বদলী

৯,০০০

৮০০

১,৪৭০

১১,২৭০

প্রতিলিপি ফি

৫০০

 

৭৫

৫৭৫

ডিজিটাল রেজিঃ সার্টিফিকেট

৫৪০

 

১৫

৫৫৫

সম্পূরক শুল্ক

১,৬২৬

 

২৪৪

১,৮৭০

সর্বমোট ফি

১৪,২৭০

১৪০১ থেকে ২০০০ সিসি পর্যন্ত গাড়ির মালিকানা বদলি বা পরিবর্তনের ফি

খাত

মূল ফি

পরিদর্শন ফি

ভ্যাট

মোট ফি

মালিকানা বদলী

২০,০০০

৮০০

৩,১২০

২৩,৯২০

প্রতিলিপি ফি

৫০০

 

৭৫

৫৭৫

ডিজিটাল রেজিঃ সার্টিফিকেট

৫৪০

 

১৫

৫৫৫

সম্পূরক শুল্ক

৩,২৭৬

 

৪৯২

৩,৭৬৮

সর্বমোট ফি

২৮,৮১৮

২০০০ সিসির বেশি গাড়ির মালিকানা বদলি বা পরিবর্তনের ফি

খাত

মূল ফি

পরিদর্শন ফি

ভ্যাট

মোট ফি

মালিকানা বদলী

৪০,০০০

৮০০

৬,১২০

৪৬,৯২০

প্রতিলিপি ফি

৫০০

 

৭৫

৫৭৫

ডিজিটাল রেজিঃ সার্টিফিকেট

৫৪০

 

১৫

৫৫৫

সম্পূরক শুল্ক

৬,২৭৬

 

৯৪২

৭,২১৮

সর্বমোট ফি

৫৫,২৬৮

ব্যাংকের মাধ্যমে গাড়ির মালিকানা বদলির ফি প্রদানের পর ব্যাংক স্লিপ, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সম্বলিত ফাইল ও ক্রয়কৃত গাড়ি নিয়ে মোটরযানটি বিআরটিএ এর যে সার্কেলে নিবন্ধিত বা অন্তর্ভুক্ত সে সার্কেল মালিকানা বদলি শাখায় পরিদর্শনের জন্য হাজির করতে হবে।

আরও পড়ুন:
☞  অনলাইনে স্মার্টকার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স এর আবেদন ও প্রাপ্তির প্রক্রিয়া
☞  ড্রাইভিং লাইসেন্সের লিখিত পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্ন ও সমাধান

সেখানে বিআরটিএ কর্মকর্তারা কর্তৃক আবেদনপত্র যাচাই-বাছাই ও গাড়িটি পরিদর্শন করে মালিকানা পরিবর্তনের অনুমতি, অর্থাৎ প্রাপ্তি স্বীকারপত্র/অস্থায়ী নিবন্ধন সনদ প্রদান করবেন। উক্ত প্রাপ্তি স্বীকৃত পত্রে নতুন নিবন্ধন সনদ বা ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট (ডিআরসি) প্রদানের লক্ষ্যে ক্রেতার (নতুন মালিক) বায়োমেট্রিক ও ছবি গ্রহণ তারিখ উল্লেখ থাকবে।

উল্লেখিত তারিখে বায়োমেট্রিক ও ছবি তোলার হলে বিআরটিএ কর্তৃক গ্রাহকের (নতুন মালিক) মোবাইল নম্বরে মেসেজ এর মাধ্যমে অবহিত করা হবে। মেসেজে উল্লেখিত তারিখে গাড়ির মালিকানার নতুন স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করতে হবে।

Get in touch with us to know more.

Contact Us